ঢাকা টু কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস টিকিট ভাড়া, সময়সূচি-Dhaka to Kolkata Maitri Express schedule

আপনি কি ঢাকা থেকে কলকাতা রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়া সহ বিভিন্ন তথ্য জানতে আগ্রহী?? তাহলে আপনাকে আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম!! আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি ঢাকা থেকে কলকাতা রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্পর্কে। এখানে থাকবে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকিটের মূল্য, ইমিগ্রেশন পদ্ধতি, কিভাবে টিকিট সংগ্রহ করবেন, টিকিট ফেরত সময়সূচী, ট্রাভেল ব্যাগের ওজন, খাবার সহ ট্রেনটি দের বিভিন্ন রকমের সুযোগ-সুবিধার সম্পর্কে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে আলোচনা করব।

ঢাকা থেকে কলকাতার পথে 14 ই এপ্রিল 2017 সালে শুক্রবার প্রথমবারের মতো মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি চালু করা হয়। এই ট্রেনটি সম্পূর্ণ শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি ট্রেন। তাই বলা হয় বাংলাদেশের মধ্যে সবচাইতে বিলাসবহুল ট্রেন। এছাড়াও এই ট্রেনটিতে আধুনিক ও বিভিন্ন রকমের যাত্রীদের জন্য সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়।

ঢাকা থেকে কলকাতা (মৈত্রী এক্সপ্রেস) ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম

ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশন থেকে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সকাল 8:15 মিনিটে ছেড়ে যায়। আপনি যদি এই ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। এখান থেকে ছাড়া এই টিকিট সংগ্রহ করা যায় না।

ঢাকা থেকে কলকাতা (মৈত্রী এক্সপ্রেস) ট্রেনের সময়সূচী

মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী এবং সাপ্তাহিক কোন বারে ট্রেন চলাচল করে থাকে। সে সম্পর্কে জানতে হলে নিচের বক্সে থেকে জেনে নিতে পারেন। মূলত মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী পরিবর্তন হতে পারে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ রেলওয়ে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে আপনাকে জেনে নিতে হবে।

ট্রেনটি সপ্তাহে চার দিন চলবে ।

মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটির বর্তমান সময়সূচী

মঙ্গলবার

বুধবার
শনিবার
রবিবার

ট্রেনটির সময়সূচি পরিবর্তন হতে পারে। মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সপ্তাহে চারদিন এর পরিবর্তে পাঁচ দিন হতে পারে ।

মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি বহির্গমন ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট
শনিবার
শুক্রবার
সোমবার
মঙ্গলবার

মৈত্রী এক্সপ্রেস রিটার্ন টিকিট কাটার নিয়ম

মূলত মৈত্রী এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে কলকাতা রিটার্ন টিকিট কাটা যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে 100% এর মধ্যে 20% টিকিট দিতে পারে।এবং আপনি যদি কলকাতা থেকে ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে টিকিট কাটতে পারেন তাহলে সেক্ষেত্রে আপনাকে 100 পারসেন এর ভিতর আশেপাশে নেই কলকাতার কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ ক্ষেত্রে সুবিধা দেয়া হয়। অর্থাৎ বাংলাদেশের রেলওয়ে স্টেশনের রিটার্ন টিকিট কাটলে 20 পারসেন্ট দেয়া হয়। এবং 80 পার্সেন্ট কলকাতা থেকে টিকিট দেয়া হয়।

ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া তালিকা

মৈত্রী এক্সপ্রেস এর বিভিন্ন আসন বিন্যাস এর টিকিটের মূল্য নির্ধারিত করা হয়েছে। এক্ষেত্রে আপনাকে ভ্যাটসহ, ও ট্রাভেল ট্যাক্স দিয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। নিচে মৈত্রী এক্সপ্রেসের ট্রেনের বিভিন্ন আসনের ভিত্তিতে টিকিটের মূল্য নির্ধারিত করা হয়েছে।

এসি কেবিনঃ

এসি কেবিন ১৫২২ টাকা
ভ্যাট ৩৭৮ টাকা
ট্রাভেল ট্যাক্স ৫০০ টাকা
মোট = ৩৪০০ টাকা

এসি চেয়ারঃ

এসি চেয়ার ১৭৪৮ টাকা
ভ্যাট ২৫২ টাকা
ট্রাভেল ট্যাক্স ৫০০ টাকা
মোট= ২৫০০ টাকা

প্রতিজনের জন্য ৫০০ টাকা করে কলকাতা টু ঢাকা ট্রাভেল ট্যাক্স দিতে হয় এই টাকাটা টিকিটের সঙ্গে যুক্ত থাকে

এসি কেবিন ২০১৫ রুপি
এসি চেয়ার ১৩৪৫ রুপি

মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার সময়

আপনি যদি অগ্রিম টিকিট কাটতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে 30 দিনের আগে টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন। ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিটের কাউন্টার টি সকাল 9 টা থেকে 7 টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এ সময়ের মধ্যে আপনাকে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। যেহেতু অনেক মানুষ যাতায়াত করে থাকে আমাদের মতামত অনুযায়ী আপনাকে অবশ্যই 15 দিন আগে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে।

ঢাকা থেকে কলকাতা (মৈত্রী এক্সপ্রেস) ট্রেনের ট্রাভেল ব্যাগ ওজন পরিমাণ

একজন পূর্ণাঙ্গ ব্যক্তি সর্বোচ্চ 35 কেজি পর্যন্ত মালামাল বহন করতে পারবে। এবং সাথে দুইটি লাগেজ নিতে পারবে। এবং তার সাথে যদি বাচ্চা থাকে তাহলে তার জন্য বিশ কেজি পর্যন্ত মালামাল নিতে পারবেন। যদি 35 কেজির বেশি মালামাল হয়ে থাকে। অর্থাৎ 50 কেজির উপরে মালামাল বেশি হলে কেজিতে প্রতি 2 ডলার মূল্যে টাকা প্রদান করতে হবে।

মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের খাবার সুবিধা

এই ট্রেনটি তে যাত্রীদের সুবিধার্থে হালকা খাবার ও পানীয় ব্যবস্থা রয়েছে। অনেক সময় টিকিটের কাটার সময় প্যাকেজ আকারে তারা টিকিট দিয়ে থাকে। সেখানে প্যাকেজ নিলে আপনার খাবার সাথে দিয়ে থাকে কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রার সময়

সাধারণত ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলওয়ে স্টেশন থেকে 8 টা 15 মিনিটে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ছেড়ে যায়। এক্ষেত্রে কলকাতা স্টেশনে রাত 9 টার দিকে পৌঁছাতে পারে ট্রেনটি। তবে সন্ধ্যা সাতটার মধ্যে ট্রেনটি পৌঁছালেও কিছু ক্ষেত্রে ৮ টা থেকে 9:00 হতে পারে।

ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়া:

আপনি যদি ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ভ্রমণ করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট পৌঁছানোর পর ইমিগ্রেশন একটি ফরম দেয়া হবে। সেটি পূরণ করতে হবে। তারপর ভারতীয় ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়াটি গদা স্টেশনের সম্পন্ন করা হয়। সেখানে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ইমিগ্রেশন ফরম পূরণ করবেন।

আশাকরি আমাদের আজকের ঢাকা থেকে কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের সকল যাবতীয় তথ্য আপনারা জানতে পেরেছেন। তাই আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ট্রেনের সময়সূচী ও যাবতীয় তথ্য নিয়ে আলোচনা করে থাকি। আপনারা চাইলে সেগুলো দেখতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button