ভরা পেটে সহবাস করলে কি হয়

ভরা পেটে সহবাস করলে কি হয়, ভরা পেটে সহবাস করলে কি হয় এই বিষয়টা নিয়ে গত কয়েকমাসে বেশ কয়েকজন আমাকে প্রশ্ন করেছেন। প্রচলিত আছে ভরা পেটে সহবাস করলে নাকি কিডনীতে পাথর হতে পারে! এসব প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আজকের লেখা।

ভরা পেটে স্ত্রী সহবাস করা কি ক্ষতিকর?

ভরা পেট বলতে রাতের খাবার বা ডিনারের পরপরই সহবাস করা কোনভাবেই উচিত নয়। কারন, তখন আমাদের শরীর হজম প্রক্রিয়ায় ব্যাস্ত থাকে। হার্টেরও অনেক কাজ বেড়ে যায়, কারন রক্তে কিছুটা চাপ থাকায়, হার্টকে বাড়তি পাম্প করতে হয়। এক কথায় ভরা পেটে বা খাবার খাওয়ার ২ ঘন্টার ভিতরে সহবাস করলে, হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যাবে।

এমনকি ভরা পেটে সহবাসের কারনে স্ট্রোকও হতে পারে। এতে মৃত্যু পর্যন্ত হওয়ার রেকর্ড আছে। গবেষকেরা এবিষয়ে অনেক মতামত দিয়েছেন যে, খাবার খেয়েই যারা সহবাস করেন, তারা অন্যদের তুলনায় অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি থাকে।

ভরা পেটে সহবাস করলে কি কিডনিতে পাথর হয়?

ভারা পেটে সহবাস করলে কিডনিতে পাথর হওয়ার তথ্য কি তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা। তবে আয়ুর্বেদ চিকিৎসকগন এমন একটি ধারনা করে থাকেন- খাবার খাওয়ার পর রেচন প্রক্রিয়া যখন শুরু হয়, তখন সহাবাসের কারনে শরীরের কিছু গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের রেচনকার্য্যে ব্যাহত ঘটতে পারে। সে হিসাবে কিডনিও তাদের একটি অংশ। তাই গবেষকদের ধারনা কিডনীতে পাথর হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

খাবারের পর পর সহবাস করলে যে সমস্যাগুলো হতে পারে

●হার্টঅ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে মৃত্যুও হতে পারে।

●মিলনে পূর্ণ সুখ পাওয়া যাবেনা।

●এসিডিটি বাড়বে, সেই সাথে পেটে ব্যথা থাকতে পারে।

●হার্ণিয়া বৃদ্ধির কারন হতে পারে।

●কিডনিতে পাথর হওয়ার আশংকা থাকতে পারে।

●হজমে ত্রুটির আশংকা থাকতে পারে।

●যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যেতে পারে।

●বদহজমসহ লিভার ডিজিজ হতে পারে।

সহবাসের উপযুক্ত সময় কখন

স্বামী স্ত্রীর মহব্বতের বহিঃপ্রকাশ ঘটে তার মিলন বা সহবাসের মাধ্যমে। তাই সহবাস ছাড়া স্বামী স্ত্রীর পরিচয় প্রকাশ পায়না। তবে এই সহবাসের নির্দিষ্ট সময় মেনে চলা উচিত। পূর্ণ তৃপ্তি ও স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি এড়াতে একটি সুনির্দিষ্ট সময়ে সহবাস করলে স্বামী স্ত্রী উভয়েই আনন্দ পাবে এবং স্বাস্থ্যের কোন ক্ষতি হবেনা।

সহবাসের এই সময়টা হতে পারে খাবারের ২ ঘন্টা পর অথবা শেষ রাতে। বিশেষজ্ঞদের মতে শেষ রাতে সহবাস করলে, টাইমিং দীর্ঘায়িত হয়, এবং পরিপূর্ণ সুখ পাওয়া যায়। কয়েকদিন এই অভ্যাস চালু করতে পারলে, রাতের নির্দিষ্ট সময়ে ঘুম ভেঙে যাবে। তখনকার সময়টাই সবচেয়ে নিরাপদ। তবে, খাদ্য হজম হয়ে গেলে যেকোন সময়ই সহবাস করতে পারবেন।

আমাদের কাছে যারা প্রশ্ন করেন, বিনামুল্যে উত্তর পেতে কমেন্টে প্রশ্ন করবেন। কারন এসব উত্তর দেয়ার জন্য আমরা একটি নির্দিষ্ট সময় বের করি। লেখাটি কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। নাম ও ইমেইল দিয়ে কমেন্ট করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button