ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি ময়মনসিং জেলা দেওয়ানগঞ্জ মানুষের কাছে একটি জনপ্রিয় নাম। এই ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে দেওয়ানগঞ্জ রিলেশনের সরাসরি যাত্রী নিয়ে চলাচল করে থাকে। ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি একটি আন্তঃনগর ট্রেন। এই ট্রেনটি দ্রুতগামী এবং আধুনিক বিলাসবহুল ট্রেন হওয়ায় ময়মনসিং জেলার মানুষের কাছে নিরাপদ রেল পথে ভ্রমণে এক অনন্য দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছে। ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেসের ট্রেনের নাম্বার (৭৪৩-৭৪৪)

রাজধানী ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশনের দূরত্ব 225 কিলোমিটার। এবং এই ট্রেনটি যাত্রার সময় লাগে 5 ঘণ্টা 50 মিনিট। অর্থাৎ আপনারা বুঝতেই পারছেন যে ট্রেনটি দ্রুতগামী একটি ট্রেন। এছাড়াও ট্রেনটি ঘন্টায় 75 কিলোমিটার রেল পথ অতিক্রম করতে পারে। ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি সংখ্যা মূলত মোট 14 টি। এই ছবিগুলোর মধ্যে এসি নন এসি খাবার নামাজ পড়া স্থান ইত্যাদি সুযোগ-সুবিধা যাত্রীদের জন্য রয়েছে।

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি তে আপনারা চাইলে আপনাদের মালামাল পরিবহন করতে পারেন। এক্ষেত্রে এই ট্রেনটিতে 2 টি বগিতে মালামাল বহন করার সুযোগ রয়েছে। আপনি যদি আপনার ভারী মালামাল বহন করতে চান। এক্ষেত্রে মালামাল বহন করার বিভিন্ন পুলি রেলওয়ে স্টেশনে নিযুক্ত থাকে তাদেরকে দিয়ে আপনার মালামাল বহন করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার এক্সট্রা চার্জ দিতে হবেই।

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

আপনি যদি কোন ট্রেনে ভ্রমণ করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই ট্রেনের সময়সূচী সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। তাই ট্রেনের সময়সূচী জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ বাংলাদেশ রেলওয়ে ট্রেন গুলো নির্দিষ্ট সময়ে তাদের গন্তব্য থেকে ছেড়ে যায়। ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা থেকে 18:15 মিনিটে দেওয়ানগঞ্জ উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় এবং পৌঁছায় 23:50 মিনিট। এবং দেওয়ানগঞ্জ থেকে ছয়টা 40 মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। ট্রেনটি ঢাকা এসে পৌঁছায় রাত 12:40 মিনিটে। এছাড়া আপনাদের সুবিধার্থে আমরা ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটির সঠিক সময়সূচি টেবিলের মাধ্যমে দেওয়া হল।

স্টেশনের নাম ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ঢাকা টু দেওয়ানগঞ্জ নাই ১৮ঃ১৫ ২৩ঃ৫০
দেওয়ানগঞ্জ টু ঢাকা নাই ০৬ঃ৪০ ১২ঃ৪০

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটির সাতটি শ্রেণীতে টিকিটের ভাড়া নির্ধারিত করা হয়েছে। তাই যাত্রীদের সামর্থ্য অনুযায়ী এই সাতটি শ্রেণীতে টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন। আমরা ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস এর সকল আসনের টিকিটের মূল্য নিচে টেবিল এর মাধ্যমে প্রকাশ করছি দয়া করে দেখে নিবেন।

বিরতি স্টেশন নাম ঢাকা থেকে (৭৪৩) দেওয়ানগঞ্জ থেকে (৭৪৪)
বিমান বন্দর ১৮ঃ৪২ ১১ঃ৫৫
জয়দেবপুর ১৯ঃ১০
গফরগাঁও ২০ঃ২০ ১০ঃ১০
ময়মনসিংহ ২১ঃ২০ ০৯ঃ০০
পিয়ারপুর ২২ঃ০৪ ০৮ঃ১৪
নন্দিনা ২২ঃ২৮ ০৭ঃ৫১
জামালপুর ২২ঃ৪৫ ০৭ঃ৩৩
মেন্দেহ বাজার ২৩ঃ০৫ ০৭ঃ১৩
ইসলামপুর ২৩ঃ২৪ ০৬ঃ৪৫

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকা কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশনে যাওয়ার পথে মোট সাতটি স্টেশনে যাত্রা বিরতি নিয়ে থাকে। আপনি চাইলে এই সাতটি স্টেশন থেকে দেওয়ানগঞ্জ রেলস্টেশনে ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনে যাত্রা করতে পারবেন। আমরা মিত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি যেসকল স্টেশনে বিরতি নিয়ে থাকে সে সফল স্টেশনের তালিকা নিচে টেবিলের মাধ্যমে দেখানো হল।

আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য (১৫% ভ্যাট)
শোভন ১৮৫ টাকা
শোভন চেয়ার ২২৫ টাকা
প্রথম সিট ৩০০ টাকা
প্রথম বার্থ ৪৪৫ টাকা
স্নিগ্ধা ৪২৬ টাকা
এসি সিট ৫১২ টাকা
এসি বার্থ ৭৭১ টাকা

ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি মালামাল পরিবহন ব্যবস্থা

  • শোভন শ্রেণীর যাত্রী 28 কেজি পর্যন্ত মালামাল বহন করতে পারবেন
  • শোভন দ্বিতীয় শ্রেণীর যাত্রী তেস্ট কেজি মালামাল বিনা ভাড়া বহন করতে
  • তবে আরও সুবিধা হচ্ছে অতিরিক্ত মালামাল মাশুল পরিশোধ করে তার লাগেজ হিসাবে তার নিজ গন্তব্যে বহন করার সুযোগ পাবেন
  • ট্রেনটিতে বড় স্টেশনগুলোতে লাগেজ বুকিং এর জন্য আলাদা কাউন্টার রয়েছে
  • আর আপনার লাগেজ বহনের জন্য টলির ব্যবস্থা করা হয়েছে ট্রেনটিতে

পরিশেষে ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটির সম্পর্কে আপনারা অবগত হয়েছেন ইতিমধ্যে। তাই আমরা আশা করি আমাদের এই পোস্টটির তথ্য আপনি জানতে পেরে ট্রেনটি ভ্রমণ করতে কোন সমস্যার সম্মুখীন হবেন না। এছাড়াও আপনি যদি ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্পর্কে আরো কিছু জানার থাকে তাহলে আমাদের নিচের কমেন্ট বক্সে আপনার মন্তব্যটি ব্যক্ত করতে পারেন। আমরা অবশ্যই আপনার মন্তব্যটির সঠিক উত্তর দিয়ে দিব ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button